Breaking News
Home | অপরাধ | ‘আমাকে পেতে চাইলে আগে জামিলকে খুন করতে হবে’

‘আমাকে পেতে চাইলে আগে জামিলকে খুন করতে হবে’

ঢাকার বাড্ডায় বাবা-মেয়ে হত্যায় প্রধান সন্দেহভাজন প্রতিবেশী শাহীন ও তার স্ত্রীকে খুলনা নগরীর লবণচোরা থানার মোহাম্মদনগর এলাকা থেকে শুক্রবার ভোর সাড়ে ৪টায় আটক করে পুলিশ। আজ শনিবার ঢাকা মহানগর হাকিম সাদবীর ইয়াসিন আহসান চৌধুরীর আদালতে শাহিন মল্লিককে চারদিনের রিমান্ড দেওয়া হয়।

এর আগে বিচারক জানতে চান শাহিন কিছু বলবেন কি না। এরই পরিপ্রেক্ষিতে তিনি আদালতকে বলেন, ‘আরজিনা এবং আমি পাশাপাশি থাকার কারণে দুজনের সম্মতিতে আমাদের মাঝে একটা সম্পর্ক গড়ে ওঠে। প্রথমে আরজিনা আমাকে প্রস্তাব করে। একপর্যায়ে আরজিনা বাসা থেকে তার বাবার বাড়ি চলে যায়। দুই মাস পর সে আবার জামিলের সংসারে ফিরে আসে।’

শাহিন বলেন, ‘আরজিনার পরিবার আমাদের সম্পর্কটা মেনে নিতে পারেনি। এ কারণে আরজিনা আমাকে বলে, সংসার করতে চাইলে আগে জামিলকে খুন করতে হবে।’ তিনি আরো বলেন, ‘পরিকল্পনা অনুযায়ী আমি আমার এক বান্ধবীকে দিয়ে একটি ফার্মেসি থেকে ঘুমের ওষুধ আরজিনাকে এনে দিই।’

আরজিনার প্রেমিক বলেন, ‘আরজিনা সেই ঘুমের ওষুধ করলার তরকারির সঙ্গে মিশিয়ে জামিলকে খাওয়ায়। জামিল ঘুমিয়ে পড়লে আমি তাকে কাঠ দিয়ে মাথায় আঘাত করি। জামিলকে মারার দৃশ্য নুসরাত দেখে ফেলায় তাকে বালিশ চাপা দিয়ে মেরে ফেলি।’

শাহিন বলেন, ‘আমি তাদের মারতে চাইনি। হঠাৎ একটা এক্সিডেন্ট (দুর্ঘটনা) হয়ে গেছে। জীবনে প্রথম এমন কাজ করেছি। জীবনে আর এমন কাজ করব না।’

এদিকে, এ ঘটনায় নিহতের স্ত্রী আরজিনা আদালতে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, গত বুধবার গভীর রাতে বাড্ডা হোসেন মার্কেটের পেছনে ময়নারটেক এলাকার একটি বাসায় বাবা প্রাইভেটকারচালক জামিল শেখ (৪১) ও তার স্কুল পড়য়া মেয়ে নুসরাতকে (৯) নৃশংসভাবে হত্যা করা হয়। এ ঘটনার জন্য জামিল শেখের সঙ্গে সাবলেট ভাড়া থাকা শাহীন জড়িত বলে সন্দেহ করে আসছে পুলিশ।

পুলিশের সন্দেহ, স্ত্রীর পরকীয়া কেন্দ্র করে এ খুনের ঘটনা ঘটেছে। এ জন্য জামিল শেখের স্ত্রী আরজিনা বেগমকে আটক করেছে পুলিশ।

প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আরজিনা বেগমের দাবি, ডাকাতরা তার স্বামী ও মেয়েকে খুন করেছে। এমনকি তাকে ধর্ষণ করা হয়েছে বলেও দাবি করেন তিনি। তবে পুলিশ তার এসব দাবি বিশ্বাসযোগ্য বলে মনে করছে না।

নিহত জামিল শেখ প্রাইভেটকারচালক ছিলেন। পুলিশের ধারণা, পরকীয়ার জের ধরেই তিনি ও তার মেয়ে নুসরাত খুন হয়েছেন। এর সঙ্গে ওই বাড়ির বাসিন্দা ও নিহত জামিল শেখের প্রতিবেশীসহ (সাবলেট) তিন থেকে চারজন জড়িত রয়েছে।

এদিকে, ময়নাতদন্তকারী চিকিৎসক জানিয়েছেন, জামালকে ভারী কিছুর আঘাতে আর শিশুটিকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হয়েছে।

About admin

Check Also

অভিজাত এলাকায় মডেল ও অভিনেত্রীদের ‘ব্ল্যাকমেইল পার্টি’

বছর তিনেক আগে রাজধানীর গুলশানে একটি ফ্ল্যাটে জাতীয় পার্টির এক নেতাকে কৌশলে ডেকে নিয়ে এক …