Breaking News
Home | দেশজুড়ে | স্কুলছাত্রীকে বিয়ে করতে গিয়ে দুই সন্তানের জনক ধরা

স্কুলছাত্রীকে বিয়ে করতে গিয়ে দুই সন্তানের জনক ধরা

সাতক্ষীরায় নবম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুলছাত্রীকে বিয়ে করতে গিয়ে ধরা পড়েছেন দুই সন্তানের জনক। ধরা পড়া রহিম সানা ভ্যানচালক। আগে দুই বিয়ে করেছেন। ঘরে দুটি সন্তান রয়েছে।
রোববার সাতক্ষীরা আদালত চত্বরের বাগান থেকে তাদেরকে আটক করে পুলিশ। বর্তমানে ভ্যানচালক ও স্কুলছাত্রী সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশের হেফাজতে রয়েছে।

জেলা বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ কমিটির সদস্য অ্যাডভোকেট সাকিব হোসেন জানান, যশোরের মনিরামপুরের ওই স্কুলছাত্রীকে বিয়ে করার জন্য নিয়ে আসেন সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার কেয়ারগাতি গ্রামের শামসুর সানার ছেলে ভ্যানচালক রহিম সানা। এ কাজে তাকে সহায়তা করেছেন একই এলাকার আবির হোসেন।
তিনি আরও জানান, তারা নোটারি পাবলিকের মাধ্যমে বিয়ে করার কথা বলতেই পুলিশে খবর দেয়া হয়। পুলিশ এসে স্কুলছাত্রী ও রহিম সানা এবং তার বন্ধু আবিরকে থানায় নিয়ে যায়।

স্কুলছাত্রী জানায়, রহিম সানা তাকে মিথ্যা কথা বলে নিয়ে এসেছে। সে মনিরামপুরের বালিয়াডাঙ্গা হাইস্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রী। রহিম সানা বিবাহিত এবং সন্তান থাকার বিষয়ে মিথ্যা বলেছে।
এ বিষয়ে রহিম সানা জানান, তিনি আগে দুই বিয়ে করেছেন। বাড়িতে স্ত্রী ও দুই সন্তান রয়েছে তার। কিন্তু এসব কথা স্কুলছাত্রীকে জানাননি তিনি।
সাতক্ষীরা সদর থানা পুলিশের ডিউটি অফিসার এসআই শহিদুল ইসলম জাগো নিউজকে জানান, বিকেল সাড়ে ৩টার দিকে তাদেরকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। উভয় পক্ষের পরিবারের লোকজন আসার পর বিস্তারিত জেনে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।
আকরামুল ইসলাম/এএম/এমএস

About admin

Check Also

সেলফিতে ধরা পড়লো ট্রেনের ধাক্কায় বৃদ্ধের মৃত্যু

রেল লাইনের পাশে দাঁড়িয়ে শখের বসে মোবাইল ফোনে ট্রেনসহ একটি সেলফি তুলছিলেন উল্লাপাড়া চক্ষু হাসপাতালের অ্যাম্বুলেন্স চালক গোলাপ হোসেন। আকস্মিকভাবে তার সেলফিতে ধরা পড়ে রেল লাইন পার হওয়ার সময় এক বৃদ্ধকে ট্রেনের ধাক্কার দৃশ্য। সেলফি তোলার ৫ সেকেন্ড পরই ওই বৃদ্ধ ট্রেনের ধাক্কায় মারা যান। গত শুক্রবার (১লা জুন) দুপুরে সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া উপজেলার পঞ্চক্রোশী ইউনিয়নের ছোট লক্ষ্ম

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *