Breaking News
Home | সংবাদ | বেতন পরিশোধ না করে কারখানায় তালা লাগিয়ে পালাল কর্তৃপক্ষ

বেতন পরিশোধ না করে কারখানায় তালা লাগিয়ে পালাল কর্তৃপক্ষ

গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার সাইটালিয়া এলাকায় দুইবার তারিখ দিয়ে বেতন পরিশোধ না করে অবশেষে তালা লাগিয়ে পালিয়ে গেছে পোশাক কারখানা কর্তৃপক্ষ। তাদের দুই মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে। ম্যাগনেট টেক্স নামের ওই কারখানার প্রায় তিনশ’ শ্রমিক আসন্ন ঈদ উৎসব পালন দূরের কথা মাাসিক ঘর ভাড়াসহ দোকান বকেয়া কিভাবে পরিশোধ করবেন তা নিয়ে শঙ্কিত হয়ে পড়েছেন।

শ্রমিকদের ভাষ্যমতে, চলতি জুনের ৭ তারিখে শ্রমিকদের বেতন পরিশোধের প্রতিশ্রুতি দেয় কারখানা কর্তৃপক্ষ। ৬ জুন বোনাস দিয়ে দেয়া হয়। দেশে অভ্যন্তরের কারখানাগুলো থেকে প্রয়োজনীয় অর্ডার তৈরির অনুরোধ জানিয়ে শ্রমিকদের বাড়তি কাজও দেয়া হয়। শ্রমিকেরা মাসশেষে মজুরির আশায় বাড়তি কাজও সম্পন্ন করে। ৭ তারিখে তাদের বলা হয় ১২ জুন এক মাসের বেতন ও চলতি মাসের অর্ধেক মজুরি পরিশোধ করবে।

শ্রমিকেরা জানান, প্রতিদিনের মতো ১১ জুন কাজে যোগ দিতে এসে দেখেন কারখানার মূল ফটক ও ভেতরের সকল ফ্লোরে তালা লাগানো। এমনকি কারখানার ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তাদের মুঠোফোন নাম্বারগুলো বন্ধ। উৎপাদন বন্ধের কোনোরকম নোটিশ না দিয়ে এবং বেতন পরিশোধের প্রতিশ্রুতির প্রতারণার প্রতিবাদে শ্রমিকেরা সোম ও মঙ্গলবার কারখানার সামনে শান্তিপূর্ণ অবস্থান নিয়ে বিক্ষাভ করে। প্রতিবাদ করার নেতৃত্বে থাকা দুজন পুরুষ শ্রমিককে কারখানার ভাড়াটিয়া স্থানীয় লোকজন মারধর করে।
এ ব্যাপারে কারখানার ব্যবস্থাপক মঞ্জুরুল ইসলাম সরকার বলেন, কারখানায় আমি ও নিরাপত্তাকর্মী ছাড়া আর কেউ নেই। ব্যবস্থাপনা কর্মকর্তাদের মুঠোফোন বন্ধ থাকায় তাদের সাথে যোগাযোগ করা সম্ভব হচ্ছে না। হঠাৎ করে উৎপাদন বন্ধ করে দেয়ার বিষয়টি তিনি এড়িয়ে যান। কোনো শ্রমিককে মারধর করার ঘটনা সঠিক নয়।

About admin

Check Also

ধর্ষণের অভিযোগে চাকুরিচ্যুত, ফের একই স্কুলে প্রধান শিক্ষক পদে নিয়োগ

বরগুনা সদর উপজেলার গর্জনবুনিয়া স্কুল এন্ড কলেজে ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে চাকুরিচ্যুত শিক্ষক আবুল বাশারকে পুনরায় একই বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ দেওয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে শিক্ষার্থীরা। শনিবার দুপুরে বরগুনা প্রেসক্লাব চত্বরে এই নিয়োগ বাতিলের দাবিতে কর্মসূচি পালন করে বিদ্যালয়ের বর্তমান এবং সাবেক শিক্ষার্থীরা।  শিক্ষার্থীরা জানান, বিদ্যালয়ের ছাত্রীকে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *