Breaking News
Home | সংবাদ | ‘তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রয়োজনীয়তা শেষ হয়নি’

‘তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রয়োজনীয়তা শেষ হয়নি’

সাবেক নির্বাচন কমিশনার ও ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) সাখাওয়াত হোসেন। ছবি: সংগৃহীত
‘অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের জন্য একটি নিরপেক্ষ সরকার থাকা আবশ্যক। যে প্রেক্ষাপটে তত্ত্বাবধায়ক সরকার গঠন করা হয়েছিল, সেই প্রেক্ষাপট থেকে বাংলাদেশ এখনও বের হতে পারেনি। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের প্রয়োজনীয়তা এখনও শেষ হয়নি।’- বলেছেন সাবেক নির্বাচন কমিশনার ও ব্রিগেডিয়ার জেনারেল (অব.) সাখাওয়াত হোসেন।

বুধবার দুপুর ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ১৩৭নং রুমে সেন্টার ফর গভর্নেন্স স্টাডিস এবং আইন অনুষদের যৌথ উদ্যোগে ‘ইলেকট্ররাল গভর্নেন্স ইন বাংলাদেশ অ্যান্ড ইটস প্রবলেমস’ শীর্ষক সেমিনারে প্রধান আলোচক হিসেবে তিনি আরও বলেন, তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে যদি আরও কয়েকটি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতো, তবে বাংলাদেশের মানুষ সুষ্ঠু নির্বাচনে অভ্যস্ত হতো। কিন্তু সেটা হয়নি। তাই নির্বাচনের সময় এমন একটা সরকার থাকা উচিত যা দলনিরপেক্ষ ভূমিকা পালন করবে।

সেমিনারে সরকার ও রাজনীতি বিভাগের অধ্যাপক আবদুল লতিফ মাসুমের ‘তত্ত্বাবধায়ক সরকার ফিরিয়ে আনা দরকার কিনা’- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব মন্তব্য করেন।
এ সময় সাবেক নির্বাচন কর্মকর্তা বলেন, বাংলাদেশের মানুষের পক্ষে কথা বলার কেউ নেই। তাদের ভোটাধিকার এখনও নিশ্চিত হয়নি। টকশোতে গেলে আমরা বিভিন্ন সময় ভোটাধিকার লঙ্ঘনের অভিযোগ পাই।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে বাংলাদেশের বর্তমান রাজনৈতিক পরিবেশে সুষ্টু নির্বাচন সম্ভব নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।
‘গাজীপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছেন কিনা’- অধ্যাপক শামছুল আলম সেলিমের এমন প্রশ্নে সাবেক এই নির্বাচন কমিশনার বলেন, ‘আইসিইউ রুমের বাইরের অবস্থা ফিটফাট কিন্তু ভেতরে কী হচ্ছে সেটা তো আমরা বুঝতে পারছি না।
তিন সিটি (রাজশাহী, সিলেট ও বরিশাল) কর্পোরেশন নির্বাচন প্রসঙ্গে সাখাওয়াত বলেন, খুলনার পর গাজীপুরে আমরা ‘মডেল’ নির্বাচন পেয়েছি। আবার আরেকটা মডেল হয়তো আমরা পেতে পারি।

নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়নের বিষয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমাদের দেশের রাজনৈতিক পরিবেশটাই নষ্ট হয়ে গেছে। তাই সেখানে সেনাবাহিনী মোতায়েন করেও লাভ নেই। যত দিন না দেশের রাজনৈতিক সংস্কৃতি উন্নত না হবে তত দিন দেশে সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন উপহার দেয়া সম্ভব নয়। গণতন্ত্র আইসিইউতে গেলে নির্বাচন কমিশনকে ডাক্তারের ভূমিকায় গণতন্ত্রকে রক্ষা করার দায়িত্ব গ্রহণ করতে হবে। অন্য কারও দ্বারা তা সম্ভব নয়।
এছাড়া সেমিনারে তিনি ‘না ভোট’, ইভিএম মেশিনের স্বচ্ছতা, নির্বাচন কমিশনের সদস্য নিয়োগে অনিয়ম, সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের সমস্যা ও উত্তরণে উপায় নিয়ে বিশদ আলোচনা করেন।

অধ্যাপক নাসিম আখতার হুসাইনের সঞ্চালনায় সেমিনারে সমাজবিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক রাশেদা আখতার, আইন অনুষদের ডিন অধ্যাপক বশির আহমেদ, সরকার ও রাজনীতি বিভাগের সভাপতি অধ্যাপক সামসুন্নাহার খানম এবং আইন ও বিচার বিভাগের সভাপতি কে এম সাজ্জাদ মাহসীন বক্তব্য রাখেন। সেমিনারে জাবির সাবেক অধ্যাপক এম সলিমউল্লাহ খানসহ আয়োজক দুই বিভাগের শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা উপস্থিত ছিলেন।

About admin

Check Also

ত্রাণ মজুত আছে কিন্তু নেওয়ার মতো মানুষ নেই: ত্রাণমন্ত্রী মায়া

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেছেন,  ১২ মাসের মধ্যে ৭ মাসই দুর্যোগে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *