Breaking News
Home | স্বাধীন | কি কারণে বাংলাদেশে আসছেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ ?

কি কারণে বাংলাদেশে আসছেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ ?

ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের ঢাকা সফরে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ সহযোগিতার আলোচনাই প্রাধান্য পাচ্ছে। তার সফরকালে দুই দেশের মধ্যে তিনটি সমঝোতা স্মারক ও চুক্তি সইয়ের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।রাজনাথ সিং ঢাকা ছাড়াও রাজশাহীর পুলিশ একাডেমি সারদাতে যাবেন। পররাষ্ট্র ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে।স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের আমন্ত্রণে আগামীকাল শুক্রবার (১৩ জুলাই) তিনদিনের সফরে ঢাকায় আসছেন ভারতীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং।
জঙ্গিবাদ প্রতিরোধই মুখ্য-ভারতীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের দ্বিপক্ষীয় বৈঠক হবে। বৈঠকে দুই দেশের নিরাপত্তা, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ সহযোগিতা, সীমান্ত ব্যবস্থাপনা নিয়ে আলোচনা হবে ।

দুই দেশ গত এক দশক ধরেই সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধে জোর দিয়ে আসছে। দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলে জঙ্গিবাদ মোকাবেলায় দুই দেশই সমন্বিত ভাবে কাজ করে চলেছে। রাজনাথ সিংহের এবারের ঢাকা সফরে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ প্রতিরোধই আলোচনার প্রধান ইস্যু হবে বলে জানা গেছে।
সূত্র জানায়, তরুণ সমাজ সব সময় জঙ্গিদের টার্গেট হয়ে থাকে। তরুণদের মধ্য থেকেই জঙ্গিরা কর্মী রিক্রুট করে চলেছে। সে কারণে দুই দেশই জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে তরুণদের সচেতন করতে চায়। জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে তরুণদের সচেতন করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকার থেকে ইতোমধ্যেই নানা উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। সেসব উদ্যোগ জানার বিষয়ে ভারতের আগ্রহও কম নয়। দুই দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকে বিষয়টি আলোচনার এজেন্ডায় রয়েছে।
দুই দেশের সীমান্ত পরিস্থিতি ও সীমান্ত ব্যবস্থাপনা নিয়ে উভয় পক্ষ আলোচনার প্রস্তুতি নিয়েছে। যদিও সীমান্ত পরিস্থিতির উন্নয়ন হয়েছে। বিশেষ করে সীমান্তে নিরীহ মানুষ হত্যা কমেছে। তবে সীমান্তে সন্ত্রাসী ও চোরাচালান কার্যক্রম অব্যাহত রয়ে গেছে। এ নিয়ে উদ্বেগ রয়েছে উভয়পক্ষেরই। দুই দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বৈঠকে বিষয়টিতে জোর দেওয়া হচ্ছে।

নতুন ভিসা সেন্টার উদ্বোধন -ঢাকা সফরের দ্বিতীয় দিন রাজনাথ সিং আগামী ১৪ জুলাই রাজধানীর বারিধারায় যমুনা ফিউচার পার্কে ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্র উদ্বোধন করবেন। এই ভিসা আবেদন কেন্দ্রে কোনো ধরনের ভিসা অ্যাপয়েন্ট ছাড়াই ভিসা আবেদন জমা নেওয়া হবে।
রাজধানীর বেশ কয়েকটি আইভ্যাক সেন্টারে ভারতীয় ভিসা আবেদন জমা নেওয়া হয়ে থাকে। তবে যমুনা ফিউচার পার্কের নতুন ভিসা আবেদন সেন্টারই হবে সবচেয়ে বড় সেন্টার। এখানে প্রায় ৫০টি ভিসা আবেদন কাউন্টারও থাকবে। এছাড়া সাতশ’র বেশি ভিসা প্রার্থী একসঙ্গে বসতে পারবেন।
তিন চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই -ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ঢাকা সফরকালে দুই দেশের মধ্যে তিনটি সমঝোতা স্মারক সইয়ের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। এসব সমঝোতা স্মারকের মধ্যে রয়েছে ভারতের প্যাটেল ন্যাশনাল পুলিশ একাডেমি ও বাংলাদেশের সারদা পুলিশ একাডেমির মধ্যে দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা, বাংলাদেশের দুর্নীতি দমন কমিশন (এসিসি) এবং ভারকের সেন্ট্রাল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (সিবিআই) মধ্যে সমঝোতা স্মারক সই ও ২০১৮ সালে বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে রিভাইজড ট্রাভেল অ্যাগ্রিমেন্ট সইয়ের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে।
সারদায় যাবেন রাজনাথ সিংহ-ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আগামী ১৫ জুলাই রাজশাহীর সারদায় বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে যাবেন। তিনি পুলিশ একাডেমি পরিদর্শন করবেন। এছাড়া সারদায় দুই দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী তথ্য প্রযুক্তি ও ফরেনসিক ল্যাবের উদ্বোধন করবেন।

জাল টাকার প্রতিরোধ -জাল টাকা প্রতিরোধের বিষয়ে বাংলাদেশের কাছে সহযোগিতা নিয়ে আলোচনা হবে বলে জানিয়েছে ভারতের একাধিক কূটনৈতিক সূত্র। বাংলাদেশের সীমান্ত দিয়ে ভারতীয় জাল টাকা সে দেশে প্রবেশ করছে বলে ভারতের দাবি। গত বছর সীমান্তে প্রায় ৬৯ লাখ ভারতীয় জাল টাকা ধরা পড়েছে। সীমান্ত এলাকায় সন্ত্রাসী ও চোরাকারবারিরা এই জাল টাকার ব্যবসায়ে জড়িত বলে প্রতিবেশী দেশটির দাবি। এছাড়া ভারতীয় জাল টাকা তৈরিতে পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই-এর ইন্ধন রয়েছে বলেও মনে করে দেশটি। ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর এই সফরে জাল টাকা প্রতিরোধের বিষয়ে আলোচনা হবে।
ঢাকা সফরকালে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গেও বৈঠক করবেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘরে যাবেন। তিনি বিজিবি সদর দপ্তরও পরিদর্শন করবেন।

আগামীকাল শুক্রবার ( ১৩ জুলাই) বিকাল সাড়ে চারটায় ঢাকায় পৌঁছাবেন রাজনাথ সিং। ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সফরসঙ্গী হিসেবে দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিশেষ সেক্রেটারি (বিএম) বারজ রাজ শর্মা, অতিরিক্ত সচিব এ কে মিসরা, যুগ্মসচিব সাতিনদিয়া গর্গসহ ১২ জন প্রতিনিধি আসছেন। বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর.কম
খবরটি শেয়ার করুন

About admin

Check Also

জনসভা থেকেই ‘কর্মপন্থা-কর্মসূচি’ ঘোষণা করবে বিএনপি

বিএনপির পূর্বঘোষিত আগামী শনিবারের জনসভায় দলের ভবিষ্যত কর্মপন্থা ও কর্মসূচির কথা জানানো হবে বলে জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।বুধবার (২৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা বলেন। এর আগে এক যৌথ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেন ঢাকা জেলা, গাজীপুর, টাঈাইল, মুন্সিগঞ্জ, ঢাকা মহানগর বিএনপিসহ বিএনপির অঙ্গ ও সহযো

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *