Breaking News
Home | স্বাধীন | কোটা আন্দোলনকারীদের আটক করা হচ্ছে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

কোটা আন্দোলনকারীদের আটক করা হচ্ছে না: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

কোটা সংস্কার আন্দোলনের সঙ্গে যুক্তদের নয়, সুনির্দিষ্ট অভিযোগ থাকা শিক্ষার্থীদের আটক করা হচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল।১২ জুলাই, বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীর শেরে বাংলা নগর আদর্শ মহিলা কলেজে এক অনুষ্ঠানে দেওয়া বক্তব্যে মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, ‘যারা কোটা আন্দোলন করেছেন, আমরা এমন কাউকে আটক করছি না বা তাদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থাও নিচ্ছি না। যাদের আটক করা হচ্ছে, তাদের সুনির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে ভিডিও ফুটেজ দেখেই আটক করা হয়েছে। যারা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসির বাড়ি ভাঙচুর করেছে এবং ভিসির গাড়িতে অগ্নিসংযোগ করেছে, শুধুমাত্র তাদের ছবি শনাক্ত করে আটক করা হচ্ছে।
যারা ভাঙচুর, হামলা, অগ্নিসংযোগ কাজে নিয়োজিত ছিল, শুধু তাদের বিরুদ্ধে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি। তবে আটকের কাজে সিসিটিভির ফুটেজকে কাজে লাগানো হচ্ছে।’মিয়ানমার থেকে প্রাণভয়ে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানোর বিষয়ে সব ধরনের প্রচেষ্টা বাংলাদেশ সরকার নিচ্ছে বলে মন্তব্য করেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘আন্তর্জাতিকভাবে রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো যাবে বলে আমরা মনে করি। আমরা আশা করি, মিয়ানমার তাদের (রোহিঙ্গাদের) যেকোনো সময় ফেরত নেবে।

আমরা মিয়ানমার গিয়েছিলাম। তাদের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, বর্ডার গার্ড মহাপরিচালক বাংলাদেশে এসেছিলেন। তাদের সবার কাছেই প্রশ্নটা রেখেছি, তাদের কবে তারা ফেরত নেবেন।’সারা দেশে মাদক ব্যবসায়ীদের তালিকা এখন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের হাতে বলে জানান মন্ত্রী। দেশের বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার মাধ্যমে এ তালিকা তৈরি করা হয়েছিল জানিয়ে আসাদুজ্জামান বলেন, ‘তালিকা ধরে ধরে অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। যাদের নাম এসেছে, তাদের অবশ্যই বিচারের মুখোমুখি হতে হবে।’ উৎস- প্রিয় সংবাদ
বিশ্বকাপের ফাইনালিস্ট ক্রোয়েশিয়া ছিল বাংলাদেশের মাত্র ৩ ধাপ উপরে!
ইংল্যান্ডকে হারিয়ে চলতি রাশিয়া বিশ্বকাপের ফাইনালে জায়গা করে নিয়েছে ক্রোয়েশিয়া। ১৫ জুলাই, রবিবার ফ্রান্সের বিপক্ষে মাঠে নামবে দলটি। ফিফা র‍্যাঙ্কিংয়ে ক্রোয়েশিয়ার অবস্থান ২০ নম্বরে। অথচ ১৯৯৩ সালের আগস্টে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে যখন বাংলাদেশের র‌্যাঙ্কিং ছিল ১২০, এই ক্রোয়েশিয়ার অবস্থান তখন ছিল ১১৭। অর্থাৎ, মাত্র ৩ ধাপ এগিয়ে ছিল ক্রোয়েশিয়া।

তবে এরপর বাংলাদেশ এগিয়েছিল। একই বছরের ডিসেম্বরে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১১৬ এবং ক্রোয়েশিয়ার অবস্থান ছিল ১২২-এ। আর ১৯৯৪ সালের ফেব্রুয়ারিতে প্রকাশিত র‌্যাঙ্কিয়ে লাল-সবুজ ছিল ১১৫ অবস্থানে।
গেল ২৫ বছরে ৯৭ ধাপ এগিয়েছে ক্রোয়েশিয়া। অথচ বাংলাদেশের অবস্থান এখনো তলানিতে। এখন তাদের অবস্থান ১৯৪ নম্বরে, যেখানে ফিফার সদস্যই আছে ২০৬ পর্যন্ত।যেখানে পিছিয়ে পড়া দলগুলো ক্রমে এগোচ্ছে, সেখানে একসময় তরতর করে এগোতে থাকা বাংলাদেশ ফুটবল দল পালের উল্টো দিকে হাওয়া দিয়ে পেছনের দিকেই যাচ্ছে।

ক্রোয়াশিয়া শুরুতে যুগোস্লাভাকিয়ার অংশ ছিল। ১৯৯১ সালে স্বাধীন হয় তারা। ক্রোয়েশিয়া স্বাধীন হওয়ার পর থেকে রাশিয়া বিশ্বকাপ পর্যন্ত মোট পাঁচবার বিশ্বকাপের মূল পর্বে খেলেছে। যেখানে বাংলাদেশ ১৯৭১ সালে স্বাধীন হলেও এখন পর্যন্ত বিশ্বকাপের বাছাই পর্বই পার করতে পারেনি। কখনো সেরা ৮০ দলের মধ্যেও জায়গা করতে পারেনি।
খবরটি শেয়ার করুন

About admin

Check Also

নামাজ না পড়লে চাকরি থাকবে না: ইন্দোনেশিয়ার মেয়র

ইন্দোনেশিয়া দক্ষিণ সুমাত্রা প্রদেশের রাজধানী পলম্বংয়ে ‘হার্নো চাভো’ তার অধীনস্থ সকল কর্মচারীদেরকে নামাজের প্রতি আকর্ষণ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *