Breaking News
Home | সংবাদ | কার বেতন কত

কার বেতন কত

রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার, ডেপুটি স্পিকার, মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী-উপমন্ত্রী, বিচারপতি ও সংসদ সদস্যরা বর্তমানের চেয়ে প্রায় দ্বিগুণ বেতন-ভাতা পাবেন।আজ সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ-সংক্রান্ত সংশোধনী আইনের খসড়ার নীতিগত ও চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়।
আগে রাষ্ট্রপতি বেতন পেতেন ৬১ হাজার ২০০ টাকা। সেই বেতন ৫৮ হাজার ৮০০ টাকা বাড়িয়ে করা হয়েছে এক লাখ ২০ হাজার টাকা। প্রধানমন্ত্রী পেতেন ৫৮ হাজার ৬০০ টাকা। এখন থেকে তিনি পাবেন এক লাখ ১৫ হাজার টাকা। অর্থাৎ প্রধানমন্ত্রীর বেতন বেড়েছে ৫৬ হাজার ৪০০ টাকা।

সচিবালয়ে মন্ত্রিসভার নিয়মিত বৈঠকে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এ ছাড়া স্পিকারের বেতন ৫৪ হাজার ৮০০ টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক লাখ ১২ হাজার টাকা। প্রধান বিচারপতির বেতন ৫৬ হাজার টাকা থেকে বেড়ে হয়েছে এক লাখ ১০ হাজার টাকা। জাতীয় সংসদের মন্ত্রীদের বেতন ৫১ হাজার ৯০০ টাকা বেড়ে হয়েছে এক লাখ পাঁচ হাজার টাকা। একই সমান বেড়েছে ডেপুটি স্পিকার, বিরোধীদলীয় নেতা, চিফ হুইপ ও আপিল বিভাগের বিচারকদের বেতন। এই পদমর্যাদার ব্যক্তিরা আগে পেতেন ৫৩ হাজার ১০০ টাকা, যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে এক লাখ পাঁচ হাজার টাকা।

হাইকোর্ট বিভাগের বিচারকরা আগে পেতেন ৪৯ হাজার টাকা। তা বেড়ে এখন দাঁড়িয়েছে ৯৫ হাজার টাকা। প্রতিমন্ত্রী, বিরোধীদলীয় উপনেতা ও হুইপরা আগে পেতেন ৪৭ হাজার ৮০০ টাকা, এখন তাঁরা পাবেন ৯২ হাজার টাকা। উপমন্ত্রীদের বেতন ৪১ হাজার ৩৫০ টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৮৬ হাজার ৫০০ টাকা। এ ছাড়া সাধারণ সংসদ সদস্যদের বেতন পুরোপুরি দ্বিগুণ হয়েছে। আগে তারা পেতেন ২৭ হাজার ৫০০ টাকা আর এখন তারা পাবেন ৫৫ হাজার টাকা।
শুধু বেতন নয়, একই সঙ্গে বেড়েছে রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার, ডেপুটি স্পিকার, মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রী-উপমন্ত্রী, বিচারপতি ও সংসদ সদস্যদের ব্যয় নিয়ামক ভাতা, বেসরকারি বাড়িতে বসবাসের ক্ষেত্রে বাড়িভাড়া ভাতা, বিমানযোগে ভ্রমণকালে বিমা কভারেজ, দৈনিক ভাতা, স্বেচ্ছাধীন তহবিলসহ অন্যান্য ভাতা।

এর মধ্যে প্রধানমন্ত্রী যদি বেসরকারি বাড়িতে বসবাস করেন, সে ক্ষেত্রে তিনি পাবেন এক লাখ টাকা বাড়িভাড়া। আগে এই ভাড়ার ছিল ৫০ হাজার টাকা। মন্ত্রী, ডেপুটি স্পিকার, বিরোধীদলীয় নেতা ও চিফ হুইপ বাড়িভাড়া হিসেবে পাবেন ৮০ হাজার টাকা করে। প্রতিমন্ত্রী, বিরোধীদলীয় উপনেতা, হুইপ, উপমন্ত্রী পদমর্যাদার ব্যক্তিরা পাবেন ৭০ হাজার টাকা।
রাষ্ট্রের এই গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরা যদি বিমানযোগে ভ্রমণ করেন তাহলে বিমা কভারেজের যে পরিমাণ আগে ছিল, তাও এবার বেড়েছে। আগে রাষ্ট্রপতি বিমা কভারেজ হিসেবে পেতেন ১৫ লাখ টাকা। সেটা বেড়ে এবার হয়েছে ২৭ লাখ টাকা। প্রধানমন্ত্রীর বিমা কভারেজ ১৪ লাখ টাকা থেকে বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৫ লাখ টাকা। স্পিকার আগে পেতেন ১০ লাখ টাকার কভারেজ, নতুন হিসাবে তিনি পাচ্ছেন ১৬ লাখ টাকার কভারেজ।

একইভাবে মন্ত্রী, ডেপুটি স্পিকার, বিরোধীদলীয় নেতা, চিফ হুইপ, প্রতিমন্ত্রী, বিরোধীদলীয় উপনেতা, হুইপ ও উপমন্ত্রীরা বিমা কভারেজ হিসেবে পাবেন আট লাখ টাকা। আগে তাঁরা পেতেন পাঁচ লাখ টাকার কভারেজ। তবে সাধারণ সংসদ সদস্যরা বিমান ভ্রমণের নয় বরং দুর্ঘটনায় মৃত্যু বা পঙ্গুত্ববরণের ক্ষেত্রে ১০ লাখ টাকার বিমা কভারেজ পাবেন। আগেও তাঁরা এই অঙ্কেরই কভারেজ পেতেন।
প্রধানমন্ত্রীর দৈনিক ভাতা দুই হাজার টাকা বেড়েছে। এখন তিনি পাবেন তিন হাজার টাকা দৈনিক ভাতা। স্পিকারের দৈনিক ভাতা আগে ছিল ১০০০ টাকা, যা এখন বেড়ে দাঁড়িয়েছে ২৫০০ টাকা। একজন মন্ত্রী আগে ৭৫০ টাকা করে দৈনিক ভাতা পেতেন, সেটি এখন বেড়ে দাঁড়িয়েছে দুই হাজার টাকা করে। একই পরিমাণ দৈনিক ভাতা পাচ্ছেন ডেপুটি স্পিকার, বিরোধীদলীয় নেতা, চিফ হুইপ, প্রতিমন্ত্রী, বিরোধীদলীয় উপনেতা ও হুইপ।

এঁদের সবার আগের ভাতা ছিল ৭৫০ টাকা। এখন তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে দুই হাজার টাকায়। এ ছাড়া একজন উপমন্ত্রীর আগের দৈনিক ভাতা ছিল ৬০০ টাকা, তা বাড়িয়ে করা হয়েছে ১৫০০ টাকা। আর সংসদ সদস্যরা ৩০০ টাকা দৈনিক ভাতার বদলে এখন থেকে পাবেন ৭৫০ টাকা করে।

এ ছাড়া প্রধান বিচারপতির ডমেস্টিক এইড ভাতা, কার অ্যালাউন্স, আপিল বিভাগের বিচারপতিদের ডমেস্টিক এইড ভাতা, রেসিডেন্স অ্যালাউন্স, হাইকোর্ট বিভাগের বিচারকদের বিভিন্ন ধরনের ভাতা, সংসদ সদস্যদের নির্বাচনী এলাকার খরচ ভাতা, পরিবহন ভাতা, লন্ড্রি ভাতাসহ অন্যান্য সব ধরনের ভাতাই পরিমাণে বেড়েছে। সংবাদ উৎস- এনটিভি
খবরটি শেয়ার করুন

About admin

Check Also

উত্তরায় ৯নং সেক্টরে পুলিশ কর্মকর্তার ‘আত্মহত্যা’

রাজধানীর উত্তরার ৯নং সেক্টরের একটি বাসা থেকে এক পুলিশ কর্মকর্তার লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। নিহত …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *